৭ মাসে ই-কমার্সে ডিজিটাল লেনদেন ১৬ হাজার কোটি টাকা

মাহামরি ছড়ানো ঠেকানোর পাশাপাশি বাজার নিয়ন্ত্রণেও অবদান রাখতে শুরু করেছে দেশের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। লকডাউনে যখন অনেকেই কাজ হারিয়েছেন সেই সময়ে ৫০ হাজারের মতো নতুন কাজের সুযোগ তৈরি করেছে ই-কমার্স ব্যবসায়ীদের জাতীয় বাণিজ্যিক সংগঠন ই-ক্যাব।

ই-ক্যাব বলছে, ৫ হাজারের মতো উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণ দেয়ার মাধ্যমে ই-কমার্স ব্যবসায় স্থিতির মধ্য দিয়ে সংগঠনটির সদস্য সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৪০টিতে। আর তাদের মধ্যেমেই গত ৭ মাসে এই খাতে ১৬ হাজার কোটি টাকার ডিজিটাল লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে নিত্যপণ্য সরবরাহ হয়েছে ৩ হাজার কোটি টাকার। ডিজিটাল হাটের মাধ্যমে বিক্রি হয়েছে ২৭ হাজার কোরবানির পশু। ডিজিটাল আম মেলায় শতাধিক আম বাগান থেকে এক লাখ ৫২ হাজার কেজি আম সরবরাহ করা হয়েছে। প্রতিদিন প্রায় ১৫ হাজার পরিবারতে ৪ হাজার কেজি পেঁয়াজ সরবরাহ করছে।

এছাড়াও ঢাকার লাকডাউন এলাকায় এক লাখ মানুষকে ২১ দিনি নিত্যপণ্য সরবরাহ করেছে ই-ক্যাব সদস্যভুক্ত ৭০টি প্রতিষ্ঠান।

ইনফো গ্রাফের মাধ্যমে ই-ক্যাব আরো জানিয়েছে, করোনায় ৫ লাখ হোম ডেলিভারি দেয়ার মাধ্যমে ই-ক্যাব সদস্য প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে অন্তত ৬০ লাখ মানুষ প্রত্যক্ষ ভাবে উপকৃত হয়েছেন।